5G in India

5G in India: তিন ঘন্টার সিনেমা ডাউনলোড করা যাবে মাত্র ২ সেকেন্ডে

5G in India: আজ ১ অক্টোবর ভারতে খুব ধুমধাম করে লঞ্চ হল ৫জি সার্ভিস। আজ বেলা ১০টা সময় দিল্লির ময়দানে প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত ধরে লঞ্চ হল ভারতে ৫জি পরিষেবা। এই ৫জি পরিষেবা ভারতকে পুরোপুরি বদলে দেবে বলে মনে করছেন অনেক ব্যাক্তিরা। ৫জি লঞ্চ হবার পর শোনা যাচ্ছে ৪জি থেকে ৫জি পরিষেবা ২০গুন বেশি দ্রুত। এখন থেকে কোনো কিছু ডাউনলোড কিংবা অনলাইন মুভি দেখা থেকে শুরু করে, অনলাইনে গেম খেলা, কেনাকাটা করা, সোসিয়াল মিডিয়া চালানো, ভিডিও কল, ভিডিও আপলোড করা, ফটো আপলোড করার সময় ইউজার এক অন্যরকম অভিজ্ঞতার সাক্ষী হতে চলেছে বলে মনে করছেন টেলিকম গ্রাহকরা।

Infinix অফিসিয়াল টুইটার চ্যানেল থেকে জানতে পারি ভারতে true ৫জি স্পীড হচ্ছে সেকেন্ডে 970MB, যা সত্যিই এক অসাধারণ অভিজ্ঞতা। এই রকম দ্রুতগতির ইন্টারনেট থাকবে খুব সহজেই 3 ঘণ্টার Full HD সিনেমা মাত্র 2 সেকেন্ডে ডাউনলোড করা যাবে। পাশাপাশি টেলিকম অপারেটর গুলির কর্ণধারক বিভিন্ন ধরের মতামত প্রকাশ করেছেন। জিও থেকে মুকেশ আম্বানি জানান যে তারা ডিসেম্বরের মধ্যে পুরো ভারতে ট্রু ৫জি পরিষেবা চালু করবেন। অপরদিকে সুনীল মিত্তাল Airtel মালিক জানান যে তারা আগামী ২০২৪ সালের মধ্যে পুরো ভারতের প্রত্যেকটি শহরে ৫জি পরিষেবা চালু হবে।

ভারতের এখন কোন কোন শহরে ৫জি পরিষেবা পাওয়া যাবে?

প্রথমে ভারতের মোট ১৩টি শহরে ৫জি পরিষেবা পাওয়া যাবে বলে জানা যাচ্ছে। কলকাতা থেকে শুরু করে লখনউ পর্যন্ত মোট ১৩টি শহরে পাওয়া যাবে এই ৫জি পরিষেবা। যে যে শহরগুলিতে ৫জি পরিষেবা পাওয়া যাবে সেগুলি নিচের টেবিলের মাধ্যমে দেখানো হল।

কলকাতামুম্বাই
দিল্লিচেন্নাই
বেঙ্গালুরুচণ্ডীগড়
হায়দ্রাবাদলখনউ
পুনে গান্ধী
আমদাবাদ জামনগর
ভারতের ১৩টি শহরে পাওয়া যাবে ৫জি পরিষেবা

কি কি সুবিধা পাওয়া যাবে ৫জি পরিষেবা থেকে?

৫জি পরিষেবা থেকে বিভিন্ন সুবিধা পাওয়া যাবে। টেলিকম সনস্থা গুলির মতে ৫জি ভারতকে পুরোপুরি বদলে দেবে বলে জানা যাচ্ছে। এছাড়াও ভিভিও আপলোড, ভিডিও ডাউনলোড থেকে শুরু করে অনলাইন সিরিয়াল দেখা হবে এবার অন্য পর্যায়ের। সেগুলির মধ্যে অন্যতম হল –

  • সর্বপ্রথম জানা যাচ্ছে ৫জি স্পীড অত্যধিক বেশি হওয়ায় মাত্র ২ সেকেন্ডে যেকোনো ৩ ঘণ্টার মুভি খুব সহজেই ডাউনলোড করা যাবে। এছাড়াও যেকোনো ভিডিও ফেইসবুক কিংবা ইউটিউব থেকে খুব সহজেই ডাউনলোড এবং আপলোড করা যাবে খুব নিমিষেই।
  • ২০৩৫ সালের মধ্যে ভারতে ৫জি সার্ভিস অত্যধিক হারে আর্থিক উপার্জন করবে বলে জানা যাচ্ছে। জিও থেকে শুরু করে এয়ারটেল ৫জি টেলিকম পরিষেবা আগামী বছরে ৪৫০ মিলিয়ন ডলারের ব্যাবসা করবে বলে জানা যাচ্ছে, যা ভারতীয় টাকায় প্রায় ৩৬৭৩ কোটি টাকা।
  • আগামী বছরের ভারতে ৫জি পরিষেবা অনেক কর্ম সনোস্থার সুযোগ করে দেবে। জিও কর্ণধার মুকেশ আম্বানির ৮৭,৯৪৬.৯৩ কোটি টাকার বিড ধরে সব স্পেকট্রামের প্রায় অর্ধেক কিনে নিয়েছেন। এছাড়াও আদনি গ্রুপ ৪০০MHz পরিষেবার জন্য প্রায় ২০১১ কোটি টাকা বিড করেছে বলে জানা যাচ্ছে।